বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষার

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষার সার্কুলার ২০২৩-২৪ JU

আজকে আমাদের আলোচনার প্রধান বিষয়বস্তু হচ্ছে, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষার তারিখ,ভর্তি পরীক্ষার মানবন্টন,ভর্তি পরীক্ষায় আবেদনের যোগ্যতা, ইউনিট সংখ্যা এবং আসন সংখ্যা। আপনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষার সকল তথ্য ২০২৩-২৪ জানতে পারেন আমাদের ওয়েবসাইট থেকে।

বাংলাদেশের সেরা পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় গুলোর মধ্যে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় অন্যতম।বেশিরভাগ শিক্ষার্থীর এই বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ার স্বপ্ন দেখে। কিন্তু সবার পক্ষে এই বিশ্ববিদ্যালয় পড়া সম্ভব নয় কারণ এই বিশ্ববিদ্যালয়ে আসন সংখ্যা খুবই সীমিত।তাই প্রতিবছর ভর্তি পরীক্ষার মাধ্যমে মাত্র ১৯৫০ জন শিক্ষার্থী এই বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার যোগ্যতা অর্জন করে থাকে।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষার তারিখ

২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষার সম্ভাব্য তারিখ ১৭ই মে থেকে ১৫ই মে, উক্ত তারিখের মধ্যেই বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি আবেদন যোগ্যতা

“A” ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষায় আবেদনের জন্য পরীক্ষার্থীর মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় আলাদাভাবে জিপিএ কমপক্ষে ৪.০০ পেতে হবে এবং মোট জিপিএ ৮.৫০ হতে হবে।

“B” ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষায় আবেদনের জন্য পরীক্ষার্থীর মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় আলাদাভাবে জিপিএ কমপক্ষে ৩.৫০ পেতে হবে এবং মোট জিপিএ ৮.০০ হতে হবে।

“C” ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষায় বিজ্ঞান শাখার পরীক্ষার্থীর আবেদনের জন্য মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় আলাদাভাবে জিপিএ কমপক্ষে ৩.৫০ পেতে হবে এবং মোট জিপিএ ৮.০০ হতে হবে। অন্যদিকে মানবিক শাখার পরীক্ষার্থীর আবেদনের জন্য মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় আলাদাভাবে জিপিএ কমপক্ষে ৩.৫০ পেতে হবে এবং মোট জিপিএ ৭.৫০ হতে হবে।ব্যাবসা শাখার পরীক্ষার্থীর আবেদনের জন্য মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় আলাদাভাবে জিপিএ কমপক্ষে ৩.৫০ পেতে হবে এবং মোট জিপিএ ৮.০০ হতে হবে।

“D” ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষায় আবেদনের জন্য পরীক্ষার্থীর মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় আলাদাভাবে জিপিএ কমপক্ষে ৪.০০ পেতে হবে এবং মোট জিপিএ ৯.০০ হতে হবে।

“E” ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষায় আবেদনের জন্য পরীক্ষার্থীর মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় আলাদাভাবে জিপিএ কমপক্ষে৩.৫০ পেতে হবে এবং মোট জিপিএ ৮.০০ হতে হবে।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ইউনিট

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে মোট ৩৫ টি বিভাগ রয়েছে সেগুলো চারটি ইউনিটের মধ্যে ভাগ করা। ইউনিটগুলো হল :-

“A” ইউনিট।

“B” ইউনিট।

“C” ইউনিট।

“D” ইউনিট।

“E” ইউনিট।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষার মানবন্টন

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় এ মূলত চারটি ইউনিটের উপর ভর্তি পরীক্ষা হয়ে থাকে। প্রত্যেকটি ইউনিটের মানবন্টন এক এক রকম হয়ে থাকে। নিচে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের চারটি ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার মানবন্টন আলোচনা করা হলো।

“A”ইউনিট

“A” ইউনিটে গণিত, পদার্থবিজ্ঞান, রসায়ন, বাংলা, ইংরেজি এবং আইসিটি মিলিয়ে মোট ৮০ নাম্বারের এম সি কিউ সিস্টেমে পরীক্ষা হয়ে থাকে।

বিষয়ের নাম নম্বর
গণিত২২
পদার্থবিজ্ঞান২২
রসায়ন২২
বাংলা
ইংরেজি
আইসিটি
“A”ইউনিট

“B”ইউনিট

“B” ইউনিটে মূলত বাংলায় ২৫ নম্বর, ইংরেজিতে ২৫ নম্বর, গণিতে ৫ নম্বর, সাধারণ জ্ঞান ও সাম্প্রতিক বিষয়ে 15 নাম্বার এবং বুদ্ধিমত্তায় ১০ নম্বর মিলিয়ে মোট ৮০ নাম্বারের এমসিকিউ সিস্টেমের পরীক্ষা হয়ে থাকে।

বিষয়ের নাম নম্বর
বাংলা২৫
ইংরেজি২৫
গণিত
সাধারণ জ্ঞান ও সাম্প্রতিক বিষয়১৫
বুদ্ধিমত্তা ১০
“B”ইউনিট

“C”ইউনিট

“C” ইউনিটে মূলত বাংলায় ১৫ নম্বর, ইংরেজিতে 15 নম্বর এবং অনুষদ সংশ্লিষ্ট অন্যান্য বিষয়ে ৫০ নম্বর মিলিয়ে মোট ৮০ নম্বরে এমসিকিউ সিস্টেমে পরীক্ষা হয়ে থাকে।

বিষয়ের নাম নম্বর
বাংলা১৫
ইংরেজি১৫
অনুষদ সংশ্লিষ্ট অন্যান্য বিষয়৫০
“C”ইউনিট

“D”ইউনিট

“D” ইউনিটে পরীক্ষায় বাংলায় ১০ নম্বর, ইংরেজিতে ১০ নম্বর, নাটক ও নাট্য তত্ত্ব বিভাগে ২০ নম্বর, চারু কলা ২০ নম্বর মিলিয়ে মোট ৬০ নম্বরের পরীক্ষা হয়ে থাকে।

বিষয়ের নাম নম্বর
বাংলা১০
ইংরেজি১০
নাটক ও নাট্য তত্ত্ব বিভাগ২০
চারু কলা২০
“D”ইউনিট

“E”ইউনিট

ব্যবসা শিক্ষা

“E” ইউনিটে ব্যবসা শিক্ষা শাখায় বাংলায় ১১, ইংরেজিতে ২৩, গণিত ১১, হিসাববিজ্ঞান ও ব্যবসা সংগঠন ও ব্যবস্থাপনায় ১৫ মিলিয়ে মোট ৬০ নম্বরে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।

বিষয়ের নাম নম্বর
বাংলা১১
ইংরেজি২৩
গণিত১১
হিসাববিজ্ঞান ও ব্যবসা সংগঠন ও ব্যবস্থাপনায়১৫
ব্যবসা শিক্ষা

বিজ্ঞান ও মানবিক শাখা

বিজ্ঞান ও মানবিক শাখায় বাংলায় ১১,ইংরেজিতে ২৩,গণিতের ১১,সাধারন জ্ঞান ১৫ মিলিয়ে মোট ৬০ নম্বরের পরীক্ষা হয়ে থাকে।

বিষয়ের নাম নম্বর
বাংলা ১১
ইংরেজি২৩
গণিত১১
সাধারন জ্ঞান ১৫
বিজ্ঞান ও মানবিক শাখা

ভর্তি পরীক্ষায় প্রার্থীর ফলাফল নির্বাচন

ফলাফল নির্বাচনের জন্য গ্রেডিং পদ্ধতিতে মাধ্যমিক পরীক্ষার (চতুর্থ বিষয় সহ) প্রাপ্ত জিপিএকে ১.৫ দ্বারা গুণ করে এবং উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় প্রাপ্ত জিপিএকে 2.5 দ্বারা গুণ করা হয়।

গ্রেডিং পদ্ধতিতে প্রাপ্ত ফলাফলের সাথে লিখিত পরীক্ষায় প্রাপ্ত ফলাফল যোগ করে মেধা তালিকা প্রকাশ করা হয়।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় আসন সংখ্যা ২০২৩-২৪

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষে আসন সংখ্যা ১৯৫০ নির্ধারণ করা হয়েছে। এই আসন গুলোর মধ্যে প্রত্যেকটি ইউনিট ভাগ করা আছে। প্রত্যেকটি ইউনিটের ছেলে ও মেয়েদের জন্য আলাদা আলাদা ভাবে ৫০% আসন বরাদ্দ করা হয়েছে।

ইউনিটের নামআসন সংখ্যা
“A” ইউনিট ৪৭৫
“B” ইউনিট৪০৫
“C” ইউনিট৪৯০
“D” ইউনিট৩৩০
“E” ইউনিট ২৫০
জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় আসন সংখ্যা ২০২৩-২৪

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *